কবিতা

ঈশানকোণ একটি সাহিত্যের ওয়েবজিন গ্রীষ্ম সংখ্যা মে ২০১৭ ইং 

আনিস আহমেদের কবিতা 

খাদ 


খাদের নিচে নেমে গেল একজন 

পুরুষ মানুষ,

আর, খাদের ওপরে দাড়িয়ে একজন মেয়ে 

তার চোখে কোনও বিস্ময় নেই 

কেবল বিদঘুটে হাসিতে ঝুলিয়ে দিচ্ছে রহস্য 

                     আগাপাশতলা, 

পুরুষ মানুষটি ভালোবেসেছিল মেয়েটিকে,

গভীর

খাদের নিচে দাড়িয়ে সে পুরুষ মানুষ 

বুঝেছিল চোখে চোখ রেখে মেয়েটির, 

ভালোবাসা আসলে খাদের মতো, ওপর থেকে 

ঝুলিয়ে রাখা সুতোয় হাস্যকর ছলনা 

খাদের ওপরে দাড়িয়ে থাকে পরী, সে ঈশ্বরী 

নিচে দাড়িয়ে পুরুষমানুষ, গলা খুলে চিৎকার করি....



তোমার ছায়ায় দাড়িয়ে 


তোমার ছায়ায় দাড়িয়ে আমি কথা বলি

আর, অন্ধ হয়ে আসে আমার চোখ, ক্রমশ ....

সামনে এগোনোর পথ আমার জানা নেই 

নিজস্বতা বলতেও আমার আর কিছু নেই

সবকিছু হারিয়ে তোমার ছায়ায় দাড়িয়ে আছি


তুমি কাঁপলে আমিও কেঁপে উঠি

তুমি বসে পড়লে আমিও বসে পড়ি 

তুমি হাঁটলে আমি তোমার পিছন পিছন হেঁটে যাই 

তুমি থামলে আমিও থমকে দাঁড়াই,

বস্তুত তোমাকে পিছনে ফেলে এগোনোর 

                   সক্ষমতাই নেই আমার, 

তাই, তোমার ছায়ায় দাড়িয়েই আমি কথা বলি...



সিঁড়ি


ফুটপাথে পড়ে থাকে যাদের কপাল

আর যারা পা দুলিয়ে

বাদামের খোসা ছাড়ায় 

এদের মধ্যিখানে যারা হাঁটু গেড়ে তাস খেলে

এদের প্রত্যেকের মাথা দেখতে

সিড়িঁর ধাপের মত, অবিকল


রেলিং ধরে আমি কপর্দকহীন রাজা

সিড়িঁর ধাপগুলোকে স্থির দেখে হেসে উঠছি

দেখছে না যদিও কেউ আমার খোলাদাঁত

কিভাবে ফালাফালা করেছিল শ্রেণিকঙ্কাল

ফালাফালা করে যেভাবে 'মরমি করাত'


HOME

এই লেখাটা শেয়ার করুন