কবিতা

ঈশানকোণ একটি সাহিত্যের ওয়েবজিন জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি-মার্চ ২০১৮ ইং

সদানন্দ সিংহের কবিতা   

ঐকতান



সাইপ্রাসের একতাল মুদ্রায় মুখ ডুবিয়ে

লোকটি বলে, রাজা ছিল কার ? বোধোয়ের ?


মানুষেরা তখন গিলে গিলে জল খায়। ঢোক গিলে।

শকুনেরা ছিঁড়ে ছিঁড়ে খায় শকুনেরি শব, চোখ উপড়ায়।


ছায়া হয়ে গেলে হেভী রোলার চালায় স্যামসন

এইখান দিয়ে হেঁটে যাবেন রানি এলিজাবেথ


পথে শুধু পড়ে থাকে শয্যাসন, শৌর্যের এক ফোঁটা নির্বাসন।






বিবশ রাতে



আনমনা আকাশের বিবশ রাতে

চূড়ান্ত মেঘগুলি ক্লাসিক নাচে বেহুঁশ হয়


নিস্তব্ধ নিঝুম দ্বিপ্রহর অন্ধকারে

অশরীরী লোকটা লাঠি উঁচিয়ে শূন্যে দোলায়


ভুবন মহলের ফাঁক দিয়ে

দাঁতকপাটি লাগা ইঁদুরের মিছিল এগিয়েই চলে

আর কালো বাদুড়গুলি ডানা ছিঁড়ে ছিঁড়ে খায়


আমি চেঁচিয়ে উঠি, বন্দুক আমার একটা বন্দুক চাই

বন্দুক নিয়ে নিখিল ছুটে আসে


আমার হাতের আঙুলগুলি ট্রিগারটাকে আদর করে

সঙ্গে সঙ্গে একটা প্রচণ্ড ঝড় প্যাঁচ খায়

প্রজন্মের একটা আর্তনাদ শুনি


তারপর আমাকে শূন্যে তুলে ধরে 

HOME

এই লেখাটা শেয়ার করুন