software to create website

কবিতা            Home          
রুদ্রশংকর, ইন্দ্রনীল বক্সীও সুমিতা ধর বসুঠাকুরের কবিতা



রাস্তা      রুদ্রশংকর 

এ রাস্তা থামার জন্য নয়
ও রাস্তা চলতে শেখেনি
রোগা যুবতীর ঘরে –
লেখা হল জাতককাহিনী

দু’ চোখ মুক্ত নেচেছিল
মুক্ত তার লবণাক্ত জল
অলি-গলিতে লালার গল্প
রক্ত খেল মশকীর দল

এ রাস্তায় রক্ত মোচড় দেয়
ও রাস্তায় অভিশপ্ত ঝড়
মেয়েটির বুকে সময় গড়ালো
পেছনে থাকল পাখিদের ঘর ।



ভূমিপুত          ইন্দ্রনীল বক্সী

তরাই অঞ্চলের বারমাস্যায় ঘাস হলুদ হয় না
এরকম সন্দেহ নিয়ে ডুব দিলে
ভেসে উঠে কালকের বিছানা বাসি মুখে বলে ওঠে
            “জিন্দাবাদ”
সোনালি বারান্দায় অজস্র উত্তাপের নক্সার এলোমেলোভাব
আলগোছে মুখ ধুইয়ে দেয়

সবাই জানে একদিন এরকম সকালে
দরজার এপিঠে গুটি গুটি পায়ে দাঁড়াবে
স্বভূমির পাতানো শিশু ও
তার দাইমা


লুকোচুরি         সুমিতা ধর বসুঠাকুর

পিঠের উপর দায়িত্বগুলো স্তরে স্তরে বোচকায়,
বাঁচিয়ে চলি সাবাশি আর ছোরা গাঁথা পাওনা।

কুয়াশার রাস্তাগুলো সেজেছে ধোঁয়ায়
রেটিনা ক্ষমতা আটকে আছে,এক হাত দূরে।

ধীরে ধীরে ভাঙি জল ছোঁয়া,
সার বাঁধা হোঁচটে খুলে পথ।

খোঁজার কষ্ট আনন্দ দেয় যখন,
শান্তির পরামর্শ নাই পেলাম!

এ ঘর ও ঘর উঁকিঝুঁকি, মগ্ন বিকেল
খোঁজাখুঁজি পালা জমেছে ভীষণ আড্ডায়।

  

                                                  HOME

[এই লেখাটা শেয়ার করুন]