software to create website

কবিতা            Home      
জারা সোমার দুটি কবিতা



বোধ ও বোধোদয়

রাত্রি ঘন হতেই বেরিয়ে আসে
হায়নার দল, নেশার ঘোরে
বকা আবোলতাবোলে ক্ষতিকর সংলাপ

কদমরেণু মেখে ছোঁয়াছুঁয়ি শ্রাবণে
সোহাগী বেণীতে সাজাই নক্ষত্রমালা
গোপন প্রণয়ে পান করি হেমলক
শরীরের প্রতিটা সত্তা জুড়ে
জমে থাকা অহং এ পরকীয়া অলঙ্কার

আজ শরীরের ধ্যান করি
নৈবেদ্য সাজাই পরিপাটি,
বর্ণমালার প্রথম পাঠে
আমার হাতেখড়ি, শীৎকারে বিদায় করি
অপুষ্ট অতীত, পৃথিবীর বুকে সোচ্চারে
প্রতিষ্ঠা আমার চারণভূমির জ্যামিতিক
বোধ ও বোধোদয়


ডোমকানা

পেছনে পায়ের শব্দ পেয়ে ছুঁড়ে ছিলাম অবজ্ঞা,
মনে মনে বলেছিলাম যতসব আপদ
একদিন রান্না করার সময় জড়িয়ে ধরেছিল পেছন থেকে
আমিও রুক্ষগলায় চোখে চোখ রেখে
বলেছিলাম বিরক্ত লাগছে আদিখ্যেতা
সময় নেই এসবের

কেমন যেন নিঃশব্দে চলে গেল
নাচতে নাচতে দুলতে দুলতে
পা ছড়িয়ে দেখলাম তাঁর যাত্রা

এখন আমার অফুরান সময়
কাজ অকাজের শেষে ওই একই নামে
ডেকে উঠি বারবার,
পাশের নারকেল গাছটা
পরিপাটি করে
ধুইয়ে দেয় শ্রাবণ
অবাধ্য দেয়াল ঘড়ি একঘেয়ে সুরে
জানান দেয় অস্তিত্ব,
তবুও ফিরে আসেনা সময়

বাইরে জন্ম, ঘরে মৃত্যু ও জরা নিয়ে
অপেক্ষা করে ডোমকানা মূর্খ
  

                                                  HOME

[এই লেখাটা শেয়ার করুন]