best website creator

কবিতা            Home         
শুভেশ চৌধুরীর পাঁচটি কবিতা



সবুজপত্র

চুপ করে থাকা যায় না,আকাশের
এই তারাটির মত?
সে তো কথা বলছে,তার বেতার
এখনও এই গ্রহে পৌছায়নি
এক দিন জানতে পারবো হাসি কান্না
তার মার গৃহত্যাগ
ওই সম্বন্ধে তার ব্যথাটির কথা
না, তুমিও চুপ করে থেকো না 
তোমার ভালোবাসার স্বর
একদিন শুনতে পারবে দেয়ালের
ওই পারের
ঐ ভূমিকা



বসন্ত জাগ্রত

বসন্ত জাগ্রত ঘরে
নতুন কুঁড়ি
তার লালন পোষণ,
যেন অপুষ্টির শিকার না হয়
রেবা
যেন, কোন অপরাধ না ঘটে

বসন্ত তারতো পুরুষ স্বভাব
বাসন্তীর আঁচলেও হাওয়ার ভাষা
কোমল কুঁড়িটি হাসছে
হাসছে, মহামায়া


পাণি গ্রহন

হাত ধরতে চাই তোমার
হাতের মধ্যে এই হাত
তুলোর মত
তাপ লাগছে
এই বুকে

ভালবাসার অসম্ভব ধার
কাঁটা ফুটে পায়
ফোঁটা ফোঁটা রক্তের বিন্দু
লেগে আছে
ঘাসের ডগায়


দোল

যমুনায় যায় না আর রাধা আজকাল
শহরতলির ম্যুনিসিপ্যালিটির কলে
দুপুরের ডাক শুনতে পায়
রাধা আর গোপিনীরা
কানাই,সুবল,সুদামা
দেখে ফেলে তাদের ভিজে শরীর,
ছের ছার করে। সেদিন
রাধা আর কানাই যুগলের গায়ে
পলাশের রং ছিটিয়ে দেয়
গোপিনী আর গোপ বালকেরা

কলপারে উচ্ছল রক্তের মত
এই রং
জলে ধুয়ে যায়


উচ্ছ্বাস

পারে এসে ঢেউ
ভেঙে যায়
তীরে দাঁড়িয়ে
উচ্ছ্বাস
বুকে তুলে নিই

সবাই কথা বলছে
জানিয়ে দেয়
যৌবন কাল

পান পাত্র থেকে
বিম্বিত হয়
রঙের বিভা
অরুণ



                                                  HOME

[এই লেখাটা শেয়ার করুন]