web site maker

কবিতা            Home       
নীপবীথি ভৌমিকের দুটি কবিতা



খোঁজ


নিজস্ব আলোর কাছে গিয়ে বসি আর প্রশ্নে রাখি
অন্ধকারের শ্লোক,

আমিতো দেখেছি শুধুই আলোর র্স্পশসুরগান থেকে ভাঙতে ভাঙতে নামা
অযুত আলোক…

মুহূর্তের শ্বাস বদল হয়
বদল ঘটে পুরনো ধুলোর ঢেউদেরও , আলোর র্স্পশে র্স্পশে;

তুমি কি জানো পথিক ভালোবাসার ঠিকানা কোথায় থাকে?
কোন দেশ-কাল-মাটির সুরধারায়! 
আলোর দেশে? নাকি অন্ধজনের র্স্পশ দৃষ্টিপথে!



মানুষ


উদার্ত পৃথিবীর পথে হেঁটে চলেছি
পথ জুড়ে মৃতদেহের স্তব্ধ চিৎকার, শবদেহের নীরব অশ্রুজল 
অন্ধকারের বুকে মুখ লুকানো অসংখ্য ক্ষত বিক্ষত শব্দের কথোপকথন …

মানুষ তো সভ্যতার কথা বলে
লেখে সৃষ্টির বিজয় উল্লাসের জয়গান
আঙুল র্স্পশে রাখে নিজ ইতিহাস, তবে এতো আঁধার কেন?
প্রখর দিনের আলো ছুঁয়ে নামে এ কোন স্তব্ধ আন্ধার পথ!

জেনো, তবু শাসক নয়, নয় হত্যা গান
নয় সন্ত্রাসের মুহূর্ত মর্মর;
জয়ী হবে আবার সেই মানুষের জয়গান।

---মানুষইতো শেষ কথা বলে।



                                                  HOME

[এই লেখাটা শেয়ার করুন]